Porasuna | Blog community for Educational Content

JobsNews24

The Most Popular Job Site in Bangladesh

ব্যাংক জবঃ লিখিত পরীক্ষা – অব্যয় অনিন্দ্য’র প্লান

Category: Career Guide Posting Date: 2016-11-08


বর্তমান চাকরিতে আসার ঠিক আগেই আইবিতে পড়ার সময় ব্যাংকে চাকরি করেছি ১০ মাসের মত। তাই ব্যাংক চাকরি প্রত্যাশী আর ব্যাংকার দুটাই ছিলাম আমি। সেজন্য এই ক্যারিয়ারের মানুষদের জন্য শ্রদ্ধা ও ভালবাসা সব সময়ই ফিল করি। আবার কয়েকটা ব্যাংক রিক্রুটমেন্ট পরীক্ষার আয়োজনের সাথেও ছিলাম। যাই হোক, অনেককেই কথা দিয়েছিলাম – ব্যাংক জবের রিটেন নিয়ে লিখব। সরি দেরী হয়ে গেল। এখানে আমাদের সবার জানা কথাগুলোই আমার মত করে বলছি।
প্রথম কথা – ম্যাথগুলো পারতে হবে, অনেক পরিক্ষার্থী – তাই যারা সবগুলো পারবে তাঁরাই এগিয়ে থাকবে। প্রথমেই ম্যাথ দিয়ে ফেলুন। সুদকষা, লাভক্ষতি থেকে ম্যাথ থাকেই, সাথে অন্য কিছুও আসে।
এরপর গ্রামার টাইপের বা এক কথায় উত্তর টাইপের কিছু থাকলে সেটা দ্রুত উত্তর করে ফেলতে হবে। Pls, Don’t Procrastinate here, তাইলেই আর পরে সময় ম্যানেজ করতে পারবেন না।
এরপর আসি কোথায় আপনি অন্যদের সাথে পার্থক্য সৃষ্টি করবেন-
.
***ইংরেজী থেকে বাংলা বা বাংলা থেকে ইংরেজী অনুবাদঃ (এখানে নাম্বারে বেশ এগিয়ে যেতে পারেন)
অনুবাদে অন্যদের সাথে পার্থক্য সৃষ্টির চেষ্টা করুন। সহজ যে বাক্যগুলো থাকে, সেগুলো প্রায় সবাই একই রকম অনুবাদ লিখে। তো আপনি একটু আলাদা লিখুন না! বাংলা যে বাক্যগুলো লিখবেন, সেখানে মূল কথা ঠিক রেখে একটু সাহিত্যিক ভাষা বা নিদেন পক্ষে একটু আলাদা কিছু লিখতে পারলে ভাল হয়। তবে টেকনিক্যাল শব্দের সঠিক অনুবাদই রাখবেন আর পুরো বাক্যটার গঠন সাহিত্যিক করে ফেলা যায়। আর ইংরেজী বাক্যে ভোকাবিউলারী এবং sentence structure এ বৈচিত্র আনলে নাম্বার বেশি উঠবে। একই রকম structure না দিয়ে পরের বাক্যে একটু অন্যভাবে লিখুন। চেষ্টা করলে সম্ভব। তবে সময় হিসেবে রাখুন – শেষ করে আসতে হবেই।
.
***সারমর্ম/ Précis & title : (অল্প লিখেই নাম্বার ভ্যারি করা যায়)
সুন্দর ৩/৪ টা বড় বড় বাক্য যেগুলো ওই paragraph এ নাই কিন্তু মূলভাবটা ধারণ করে। Paragraph এর শব্দ থাকবে আপনার সারমর্মে কিন্তু কিছুতেই যেন মনে না হয় যে – সরাসরি তুলে দেয়া হয়েছে। সারমর্মে কোন উদাহরণ দেয়া যাবে না আর সাইজ ১/৩ অংশের বেশি নয়।
.
***Short Essay – বাংলা ও ইংরেজীঃ
ব্যাংকের পরীক্ষায় সাধারণত অল্প জায়গায় (১/২ পৃষ্ঠায়) এবং কম সময়ে essay লিখতে হয়। তাই প্লান করে লিখতে হয়। এই short essay তে অনেক নম্বর আর তাই অন্যদের সাথে পার্থক্য সৃষ্টি সম্ভব।
টপিক হিসেবে অনেক সময়ই অর্থনীতির সাথে মিলিয়ে একটা বড় বাক্য দেয়া হয়। তাই টপিকটা ভাল করে পড়ে রিলিভেন্ট লিখা লিখতে হবে।
.
Introduction: ১/২ বাক্য। বাংলা/ ইংরেজী যাই হোক না কেন, যে বিষয়ের রচনা সেটার একটা সুন্দর সাহিত্যিক বাক্য দিয়ে শুরু করুন। ইংরেজী রচনায় এখানে কয়েকটা ভাল ভোকাবিউলারী ব্যবহার করতে পারলে ভাল হয়।
[সংশ্লিষ্ট বিষয়ের ডেফিনিশান জানলে ইন্ট্রোডাকশনের পরে দেয়া যায়। ]
Body: আমি প্রিফার করি – পয়েন্ট পয়েন্ট করে শুধু ইনফরমেশান, ডেটা, কোটেশান দিয়ে যথাসম্ভব লিখা। এজন্য কয়েকটা বড় বড় ভাগ করে তার মধ্যে পয়েণ্ট করে লিখলে সুবধা হবে। এখানে ডেটা, ইনফরমেশন বিষয়ের সাথে সবচেয়ে রিলিভেন্ট সোর্সগুলো ব্যবহারের চেষ্টা করতে হবে। এজন্য অর্থনৈতিক সমীক্ষা, বাজেট, বাংলাদেশ ব্যাংক রিপোর্ট; বিশ্বব্যাংক, জাতিসংঘ, এডিবি এমন কোন আন্তর্জাতিক সংগঠন; টিআইবি, আসক এরকম এনজিও; আর কিছুই না পেলে পত্রিকার রিপোর্টও দেয়া যায়। আর কোটেশান বিষয়ের সাথে মিলিয়ে, যেমন অর্থনৈতিক বিষয় হলে – ড. ইউনুস, অমর্ত্য সেন, রেহমান সোবহান, মনমোহন সিং, পল ক্র্যুগম্যান এরকম মানুষের নাম ব্যবহারের চেষ্টা করা যায়। এগুলো সব গুগুলে আছে, নো টেনশান। পেতে কষ্ট হলে গুগুলে topic +daily star লিখে সার্চ দিন, Daily star এ প্রকা শিত সংশ্লিষ্ট কলাম, খবর চলে আসবে। তাতে অনেক ইনফরমেশান, ডেটা থাকবে, তবে লক্ষ্য রাখতে হবে যেন, অনেক পুরুনো ডেটা না আসে।
Conclusion: উপসংহারে ভবিষ্যৎ আশংকা ও প্রতিকারের কথা সুন্দর বাক্যে লিখতে আমি প্রিফার করি।
[***Internet, পত্রিকা এবং গাইড থেকে রচনার কিছু টপিকের ডাটা দ্রুত একটা খাতায় লিখে ফেলুন। একটা টপিকে বেশি সময় নষ্ট করার দরকার নেই। প্রতি টপিকে ২০/২৫ টা ডেটা (সব তো মনে থাকবে না সেজন্য), কিছু পয়েন্ট, ২/৩ টা কোটেশানই যথেষ্ট]
[*** ইংরেজী রচনার শুরু আর শেষটা ভাল করার জন্যঃ
প্রত্যেকের কিছু শব্দসেট আছে, ওগুলোই সে ঘুরে ফিরে ব্যবহার করে। নিজের এই শব্দসেটটাকে উন্নত করা যায় মাত্র ৫০ তা নতুন শব্দ ব্যবহারের অভ্যাস করে। যেমন, আমার লিখার সময় help শব্দটা অনেকবার আসে – স্বাভাবিকভাবেই আসে। তো help না লিখে enable, assist ইত্যাদি ব্যবহার করলে বাক্যের ওজন একটু বাড়ে। এরকম মাত্র ১০ টা শব্দ পরিবর্তন করলেই শুরুর আর শেষের বাক্যগুলি একটু আকর্ষনীয় করা যায়। কোন proverb, বা প্রশ্ন দিয়েও শেষ করা যায় লেখা।]
.
কিছু আলোচিত টপিকঃ
Global Economic Recession, Euro Crisis; রেমিট্যান্স, অভিবাসী ও বাংলাদেশের অর্থনীতি; বাংলাদেশে বিনিয়োগ সংক্রান্ত সমস্যা – Foreign Direct Investment (FDI); মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং; Ready Made Garments, Labor Unrest, Labor safety ; মুক্তবাজার অর্থনীতি ; Public-Private Partnership (PPP); SME (Small and Medium Entrepreneur); বাংলাদেশের কোন সমস্যা (unemployment, corruption in banking, Tourism, share market, population, poverty….); Women Empowerment; Good Governance and economy, মুক্তিযুদ্ধ
.
বই ও ম্যাটেরিয়ালঃ
১। আগের প্রশ্নের সলিউশান সহ যে কোন গাইড।
২। যে কোন চাকরীর ম্যাথ গাইড – এমবিএ গাইডও হতে পারে। ম্যাথ বাংলা ও ইংরেজী যে কোন ভাষাতেই আসতে পারে।
৩। ক্লাস VIII এর ম্যাথ বই থেকে সুদকষা, শতকরা, লাভ-ক্ষতি। চক্রবৃদ্ধি সুদের ম্যাথ গাইড থেকে অবশ্যই দেখে যাবেন।
৪। বিসিএস বা ব্যাংক গাইড থেকে রচনার ধারণা নেয়া (ডেটার কথা আগেই বলেছি)।
৫। বাংলা ও ইংরেজী গ্রামার, অনুবাদ, সারমর্ম, পত্র এসবের জন্য আগের ব্যাংক প্রশ্ন সলভ করুন।
.
…………………………
ব্যাংকিং ক্যারিয়ারের দিকে আপনার যাত্রা শুভ হোক-
সুজন দেবনাথ (অব্যয় অনিন্দ্য)

Link: Original Article